দিন রাত কাজ করে মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছেন কচুয়ার এসিল্যান্ড

করোনা পরিস্থিতি শুরু থেকে এ পর্যন্ত নানা প্রতিকূল অবস্থায়ও সাধারন মানুষকে সচেতন করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন কচুয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একি মিত্র চাকমা।

চাঁদপুরে এখন পর্যন্ত পুলিশ, সাংবাদিক, আইনজীবী, সাধারন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রতি এলাকার স্হানীয় প্রশাসন মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে বিভিন্ন ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

এই কঠিন সময়ে একি মিত্র চাকমা সর্বোচ্চ সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। ছুটে গেছেন সাধারন মানুষের কাছে। দু:স্থ ও নিম্নআয়ের পরিবারে সরকারি সহায়তা দেয়ার পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা ও ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রান বিতরণকে উৎসাহিত করেন তিনি। করোনায় যেখানেই কেউ আক্রান্ত হয়েছেন সেখানেই তিনি ছুটে গেছেন। তাঁর এ কার্যক্রমে সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

তিনি নিয়মিত কচুয়ার বিভিন্ন বাজার গুলো মনিটরিং এর মাধ্যমে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করায় অসাধু ব্যবসায়ীদের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে শাস্তির প্রদানের পাশাপাশি ব্যাপক ভ‚মিকা রেখেছেন। তাঁর এসব কাজে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পরামর্শক্রমে ও সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করেছেন সেনাবাহিনী,জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ।

ফলে কচুয়া উপজেলা বাসীর কাছে তিনি অনন্য এক নামে পরিচিতি পাচ্ছেন। তিনি এ পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কচুয়ায় ১২৫টি মামলা পরিচালনা করেন এবং ৪ লক্ষ ৮৪ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

জানা গেছে, কচুয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একি মিত্র চাকমা কচুয়ায় ১৫ অক্টোবর ২০১৯ সালে যোগদান করেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি রাঙ্গামাটি পাবর্ত্য জেলা সদর উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামে। তিনি ৩৪ তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সহকারী কমিশনার (ভূ‚মি) পদে নিয়োগ পান।


Post a Comment

0 Comments