প্রচন্ড কষ্ট দিয়ে ভারতীয় সেনাদের মারে চাইনিজ সেনারা

গত কয়েকদিন আগে হিমালয় এরিয়ার বর্ডারে ভারত আর চাইনিজ আর্মিদের মধ্য তুমুল লড়াই হয়। এতে লেফটেনেন্ট কর্ণেল সহ কমপক্ষে বিশ ভারতীয় সেনা মারা যায়।

এই ঘটনার পরপরই দুই দেশের সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। জানা যায় গত ৪৫ বৎসরের মধ্যে এটি সবচেয়ে বড় সামরিক ঘটনা। আর এতেই ইন্ডিয়ান আর্মিরা ধরাশায়ী হয়।

বিবিসি থেকে জানা যায় দুই দেশের আর্মির মধ্যে এখন উত্তেজনা তুঙ্গে এবং দুই পক্ষই সীমান্তে বিপুল আর্মি মোতায়েন করেছে।

বিশ জন আর্মি মারা গেলেও জানা যায় মর্মান্তিক ভাবে এদের মারা গয়েছে। পেরেক লাগানো রট দিয়ে পিটিয়ে মারা হয় আর কয়েকজন কে বরফের পাহাড় থেকে খাদে ফেলে দেয়। বিপরীতে ইন্ডিয়ান আর্মি চাইনিজ আর্মিদের তেমন কিছুই করতে পারেনি।

লাদখ সীমান্তে অনেকদিন ধরেই দুই বাহিনীর মধ্যে ছোট ছোট যুদ্ধ হলেও কিন্তু এবারই সবচেয়ে বড় ও ভয়াবহ হতাহতের ঘটনা ঘটে। 

১৯৬২ সালে দুই দেশের মধ্যে প্রথম যুদ্ধ সংঘটিত হয় তখন ইন্ডিয়া পরাজিত হয়। 

দিন দিন উভয় দেশের মধ্যে সমস্যা বেড়েই চলছে যা অন্তর্জাতিক ভাবে সংকটের কারন হতে পারে। 

তাছাড়া পাকিস্তান ও নেপালের সাথেও সীমান্ত নিয়ে বিরোধ রয়েছে ইন্ডিয়ার। বাংলাদেশ সীমান্তেও নিরীহ মানুষ গুলি করে মারে বিএসএফ। 

Post a Comment

0 Comments