৯৭ বছর বয়সেও করোনাকে হারালেন মুক্তিযোদ্ধা বেগম খায়রুন নেছা আফছার

পাকিস্তানি হায়েনাদের পর এবার করোনাকেও পরাস্ত করলেন বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জননী ৯৭ বছর বয়সী বেগম খায়রুন নেছা আফছার। গত মঙ্গলবার (২৩ জুন) পাওয়া পরীক্ষার ফলাফলে তাঁর করোনা নেগেটিভ আসে। তিনি মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি আফছার বাহিনী প্রধান সাবসেক্টর কমান্ডার মেজর (অব.) মরহুম আফছার উদ্দিন আহাম্মেদের সহধমিণী ও ময়মনসিংহের ভালুকা আসনের এমপি আলহাজ কাজিম উদ্দিন আমাম্মেদ ধনুর মাতা। আলহাজ কাজিম উদ্দিন আমাম্মেদ ধনু এমপি কালের কণ্ঠকে তার মায়ের করোনা জয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 



পরিবার সূত্রে জানা যায়, বার্ধক্যজনিত কারণে বেশ কিছু দিন অসুস্থতায় ভুগছেন বেগম খায়রুন নেছা আফছার। এরই মাঝে বেসরকারি হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়ার পর ডাক্তারের পরামর্শে ঢাকার বাসায় অবস্থান করেই তাঁর চিকিৎসা চলছে। এদিকে, করোনা উপসর্গ দেখা দিলে গত ১৩ জুন বেগম খায়রুন নেছা আফছার ও তার মেয়ে রহিমা আফরোজ শেফালীসহ পরিবারের চারজনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরদিন ১৪ জুন পাওয়া ফলাফলে বেগম খায়রুন নেছা আফছার ও রহিমা আফরোজ শেফালীর করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়। 

গত ১৫ জুন মা - মেয়েকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের ভর্তির পরপরই ৯৭ বছর বয়সী বেগম খায়রুন নেছা আফছারের অবস্থা বিবেচনায় চিকিৎসক তাঁকে লাইফ সাপোর্টে দেন। পরবর্তীতে আবারো নমুনা পরীক্ষা করা হলে গতকাল মঙ্গলবার (২৩ জুন) রাতে পাওয়া ফলাফলে তাঁর করোনা নেগেটিভ আসে। তবে, বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার করণে তিনি ওই হাসপাতালে এখনো লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন বলে জানা যায়। পাশাপাশি, করোনা নিয়ে একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মেয়ে রহিমা আফরোজ শেফালীর অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে।

অপরদিকে, এমপি কাজিম উদ্দিন আহাম্মেদ ধনু, তার ভগ্নিপতি উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ আবুল কালাম ও দুই গৃহপরিচারিকাসহ তাদের পরিবারের আরো ১৫ জনের নমুনা পরীক্ষা হলে দুই গৃহপরিচারিকার করোনা শনাক্ত হয়। তাদের চিকিৎসা চলছে। 

মায়ের করোনা জয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে আলহাজ কাজিম উদ্দিন আমাম্মেদ ধনু এমপি তার মায়ের সুস্থতাসহ সকল করোনা সংক্রমিতদের আরোগ্যের জন্য দেশবাসীর দোয়া কামনা করেছেন। উল্লেখ্য, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জননী বেগম খায়রুন নেছা আফছার এলাকার মানুষের কাছে খুবই সম্মানীয় এবং জনপ্রিয় একজন নারী। 

Post a Comment

0 Comments