মায়ের দুধের মাধ্যমে করোনা ছড়ায় না

মায়ের বুকের দুধের মাধ্যমে করোনা সংক্রমিত হয় না; তবে মা করোনা বিষয়ক সাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। আজ রবিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে তিনি এ তথ্য জানানো হয়। 

করোনাকালে শিশু খাদ্য প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, শূন্য থেকে ৬ মাস পর্যন্ত শুধু মায়ের বুকের দুধই যথেষ্ট। কারণ মায়ের বুকের দুধ থেকে শিশুর সবধরনের পুষ্টি এবং পানি পেয়ে থাকে।

শিশুর বয়স ৬ মাসের পর মায়ের দুধের পাশাপাশি পূর্ণ নিরাপদ পুষ্টিসম্পন্ন বয়স উপযোগী খাবার দিতে হবে এবং ২ বছর পর্যন্ত অবশ্যই বুকের দুধ পান করাতে হবে। মায়ের বুকের দুধের মাধ্যমে করোনা সংক্রমিত হয় না। তবে মা করোনা বিষয়ক সাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বরাত দিয়ে তিনি বলেছেন, খাবারের মাধ্যমে করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) সংক্রমিত হয় না।

তবে খাদ্য নিরাপত্তার জন্য খাদ্য বাহিত রোগ প্রতিরোধের জন্য ৫টি বিষয় অনুসরণ করতে হবে। সর্বস্তরে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা, কাঁচা এবং রান্না করা খাবার আলাদা রাখা, ভালো ভাবে সেদ্ধ করে রান্না করা, নিরাপদ তাপমাত্রায় খাবার সংরক্ষণ করা, নিরাপদ পানি ও খাদ্য কাঁচামাল ব্যবহার করা। তবে সব স্তরে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

সুষম ও পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের পরামর্শ দিয়ে ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, বিভিন্ন ধরনের টাটকা শাক-সবজি, ফল, পূর্ণ শস্যদানা সমৃদ্ধ খাবার বিভিন্ন প্রকার ডাল এবং শিম জাতীয় খাবারের পাশপাশি মাছ, মাংস, ডিম, দুধ ইত্যাদি খেতে হবে।

অনলাইন বুলেটিনে বলা হয়, বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৫ জন।

এনিয়ে মোট মারা গেলেন দুই হাজার ৫২ জন। এছাড়া একই সময়ে আরও দুই হাজার ৭৩৮ জন করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল এক লাখ ৬২ হাজার ৪১৭ জন।

Post a Comment

0 Comments