চাঁদপুরের তরুন জহিরুল পেলেন ডায়না অ্যাওয়ার্ড

চাঁদপুরের জন্য এক বিশেষ সম্মান বয়ে আনলেন এই তরুন।
প্রিন্সেস ডায়ানার স্মৃতিচারণে দেয়া “দ্য ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড” পাওয়ার বিশেষ গৌরব অর্জন করলো চাঁদপুরের তরুণ  মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম। দৈনন্দিন কাজের বাইরে গিয়ে সামাজিক পরিবর্তন এবং উন্নতিতে অসামান্য ভূমিকা রাখার কারণে বাংলাদেশ এর এক তরুণ যুবক “দ্যা ডায়ানা অ্যাওর্য়াড” এ ভূষিত হন। জহিরুল চাঁদপুর সদর উপজেলা গোবেন্দিয়া গ্রামের সন্তান। তিনি চাঁদপুর আল আমিন একাডেমির শিক্ষার্থী ছিলেন।


বাংলাদেশ এ বসবাসরত ২১ বছর বয়সী মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম সামাজিক উন্নতি, অবক্ষয় রোধে অবদান রাখার জন্য সর্বোচ্চ পুরস্কার “দ্য ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড” এ ভূষিত হয়েছেন। ওয়েলস এর প্রিন্সেস ডায়ানার স্মৃতিচারণে নির্মিত এই অ্যাওয়ার্ডটি তার পুত্রদয় “দ্য ডিউক অফ ক্যামব্রিজ” এবং “দ্য ডিউক অফ সাসেক্স” এর সহযোগীতায় চ্যারিটি থেকে প্রদান করা হয়।

"দ্য ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড” এর সিইও এই পুরষ্কারপ্রাপ্ত সবাইকে স্বাগত জানান এবং বলেন “দ্য ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড” তরুণ প্রজন্মকে সামাজিক পরিবর্তন এবং উন্নতি আনয়ন এ সবসময় উৎসাহ প্রদান করে যাচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও এটি সবাইকে অনুপ্রাণিত করে যাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।

মূলত ৫টি বিষয় এর ওপর লক্ষ্য রেখে এই অ্যাওয়ার্ড এর জন্য মনোয়ন দেয় হয়। সর্বমোট ১৩ জন বিচারক প্যানেল এর সিদ্ধান্ত এর ওপর ভিত্তি করে এই অ্যাওয়ার্ড টি প্রদান করা হয়ে থাকে। দেশের বিভিন্ন সমস্যা এবং সামাজিক অবক্ষয় দেখে বাংলাদেশের তরুণ যুবক মুহাম্মদ জহিরুল সিদ্ধান্ত নেন কিছু করার। সেই উদ্দেশ্যকে সফল করতে এবং বাংলাদেশ এর শিক্ষা ব্যাবস্থা সম্প্রসারণ, বৈষম্য দূরীকরণ,আর্থসামাজিক অবস্থা পরিবর্তন এর লক্ষ্যে ২০১৬ সালে তিনি প্রতিষ্ঠিত করেন “ইগনাইট ইয়ূথ ফাউন্ডেশন”।

বর্তমানে ইগনাইট ইয়ূথ ফাউন্ডেশন এর একটি স্কুল রয়েছে যেখানে প্রায় ৬৭ জন দরিদ্র শিশু শিক্ষা পাচ্ছে। এছাড়া সাত জেলায় প্রায় ২৩ হাজার ইগনাইট কর্মী সামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে। এসব কাজে ইগনাইট এর রয়েছে ২৬ সদেস্যর একটি বিশেষ টিম।

Post a Comment

0 Comments