গরুর সাথে সেলফি তুলতে গিয়ে দাঁত ৩২ টি থেকে ৩০ টি হয়ে গেলো যুবতী মুন্নীর

ভাত না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু, সেলফি না তুলে কি থাকা যায়? কোনো একটা কিছু পেলেই যেনো সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে এখনকার নার্গিস, মুন্নী, জরিনা, কুলসুমারা।



কিন্তু তাই বলে কখন কোথায় সেলফি তুলতে হবে সেটাও কি ভাববে না? তাইতো এবার উল্টো পাল্টা সেলফি তুলতে গিয়ে বোরকা হয়ে গেলো তরুণী মুন্নী।

হাতে স্মার্ট ফোন কলেজ পড়ুয়া সেলফি তুলতে ভালো লাগে। গতকাল কোরবানি পশু বাড়িতে আনার পর থেকেই অন্তত তিন কুড়ি সেলফি তুলেছিল মেয়েটি।

সামনে দিয়ে সেলফি, গরুর রানের সাথে সেলফি, নিচে দিয়ে সেলফি, পিছনে দিয়ে সেলফি ইত্যাদি বিভিন্ন এঙ্গেলে সেলফি তুলতে তুলতে গরুটির সহ মাথা ঘুরে যাচ্ছিলো। ঠিক ঐ মুহূর্তেই দিলো এক ঘা আর তাতেই ফাইনাল হয়ে গেলো খেলা।

বিভিন্ন এঙ্গেলের সেলফি তুলার এক পর্যায়ে পশুটি আর টর্চার সহ্য করতে না পেরে তরুণী মুন্নী কে শিং এক গুতা দিলেই মুন্নীর মুখ দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে। এক পর্যায়ে দেখা যায় গুতোর ঠেলায় মুন্নীর দু'দুটো দাঁত ভেঙ্গে গিয়েছে।

পরে সামান্য চিকিৎসায় রক্ত পরা বন্ধ হলেও দাঁত ৩২ টি থেকে ৩০ টি হয়ে যায়।

পবিত্র ঈদুল আযহা একদম সন্নিকটে। চাঁদপুর সহ মতলবের বিভিন্ন স্হানে শুরু হয়ে গিয়েছে কোরবানির পশুর হাট।

যারা সামর্থ্যবান নিজের সাধ্য অনুযায়ী পশু কিনছেন কোরবানি করার আসায়। তাই সকলের মনে রাখা উচিত কোরবানির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে একমাত্র সৃষ্টিকর্তাকে খুশি করা। লোক দেখানো বা ছবি তুলা নয়।

যেহেতু আমরা এ পশুটির মাধ্যমে সৃষ্টিকর্তা কে খুশি করার চেষ্টা করবো তাই আমরা ভালো ভাবে খেয়াল রাখবো, আমরা যাতে এমন কিছু না করি যাতে পশুটির কোনো প্রকার কষ্ট হয় এবং কোরবানি পশুটির গাম্ভীর্যতা নষ্ট হয়। 

Post a Comment

0 Comments