বৃষ্টি আর বন্যার কারনে বাজারে সকল জিনিস পত্রের দাম বৃদ্ধি পেতে পারে

গতকাল সারাদেশে রেকর্ড পরিমান বৃষ্টিপাত হয়েছে। এতে দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্হিতির অবনতি হয়েছে। কোনো কোনো স্হানে কয়েক ফুট পর্যন্ত পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।




বন্যা আর ভারী বৃষ্টিপাতের কারনে কৃষকরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। বিভিন্ন অঞ্চলে অনেক ফসলী জমি তলিয়ে গিয়েছে। এতে ফসল ঘরে তোলা থেকে শুরু করে ফসল পরিবহনেও নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই ভারী বৃষ্টিপাতের কারনে বাজারে ধান আর চালের দাম উধ্বর্মুখী। খোজ নিয়ে জানা যায় বৃষ্টিপাতের কারনে বাজারে পর্যাপ্ত ধান, চালের সরবরাহ নেই।

সামনে পবিত্র ঈদুল আযাহাকে কেন্দ্র করে জিনিস পত্রের দাম আরো বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছেন বাজার মনিটরিং কমিটির সদস্যরা। এমনিতেই ঈদকে কেন্দ্র করে আমাদের দেশে সবসময় বাজারে সবকিছুর দাম বৃদ্ধি পায় তার সাথে এবার যুক্ত হয়েছে বন্যা আর বৃষ্টি।

করোনার কারনে এমনিতেই বাজারের অবস্হা টালমাটাল। এবার বন্যা হলে বাজারের পরিস্হিতি আরো অবনতি হবে।

বৃষ্টির কারনে কৃষকরা মৌসুমের ধান শুকাতে পারছেন না। সকল ফসল তুলতে পারলে বাজারে সরবরাহ পর্যাপ্ত হবে বলে ধারনা কর হচ্ছে। 

Post a Comment

0 Comments