জুলাই মাস থেকেই নিয়মিত নামাজ আদায় হবে আয়া সোফিয়ায়

ষষ্ঠ শতাব্দিতে নির্মিত স্থাপত্য আয়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরের ঘোষণা দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। ২৪ জুলাই থেকে এটি নামাজের জন্য উন্মুক্ত করা বলে তিনি জানিয়েছেন। শুক্রবার এক বক্তব্যে তিনি এটি জানান।



প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, অন্যান্য সকল মসজিদের মতো তুরস্কের আয়া সোফিয়ার দরজা সব তুর্কি নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আমরা জুলাই ২৪ তারিখে প্রার্থনার জন্য আয়া সোফিয়াকে মসজিদ হিসেবে খোলার পরিকল্পনা করেছি। এই বিশাল স্থাপনাটি তুরস্কের আওতাধীন। আমাদের বিচার বিভাগের সিদ্ধান্তে এ পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ বিষয়ে কোনো আপত্তির প্রকাশ আমাদের সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন হিসেবে ধরা হবে।

উল্লেখ্য আয়া সোফিয়া ১৫০০ বছর আগে তৈরি একটি অর্থোডক্স খ্রিস্টান গির্জা। পরে ১৫৫৩ সালে উসমানীয় শাসন আমলে এ গির্জাকে মসজিদে পরিণত করা হয়। তবে ১৯৩৪ সালে কামাল আতার্তুকের আমলে আয়া সোফিয়াকে জাদুঘরে রূপান্তর করা হয়। গতকাল শুক্রবার হায়া সোফিয়াকে ফের মসজিদে ঘোষণা দেওয়ার আদেশ দিয়েছেন তুরস্কের আদালত।

তুরস্কের ইসলামপন্থী দলগুলো দীর্ঘদিন ধরেই আয়া সোফিয়াকে মসজিদ ঘোষণার দাবি জানিয়ে আসছে। তবে দেশটির ধর্মনিরপেক্ষ বিরোধী দল এ ধরনের দাবির বিরোধিতা করে।

Post a Comment

0 Comments