টয়লেটে টিকটক ভিডিও বানাতে যেয়ে গুয়ের গন্ধে বেহুশ হয়ে হাসপাতালে মতলবের মীম

একান্ত সময় কাটাতে টয়লেটের জুড়ি নেইতা কিছু সময়ই তো বটে। তাই বলে টানা তিন দিনসম্প্রতি এমনই এক কাণ্ড ঘটেছে চাঁদপুরের মতলবে। বিশ্ব রেকর্ড গড়তে কিনা জানা নেই তবে নিজেকে ভাইরাল করতে মতলবের মেয়ে মীম টানা তিন দিন টয়লেটে বসে কাটিয়েছেন শুধু টক ভিডিও বানানোর জন্য।



সামিয়া মীম নামে ১৭ বছর বয়সী ওই তরুনী নতুন একজন টিকটকার। কিছু দিন ধরে সে নিজেকে টিকটক সেলিব্রেটি হওয়ার জন্য হেন্য হয়ে উঠে। তাই সে নিজেকে  ভাইরাল করার জন্য টিকটকের ভিডিও রেকর্ড করতে ৭২ ঘণ্টা টয়েলেটে সময় কাটান। কিন্তু কয়েকটি ভিডিও শুট করার পর আর থাকতে পারেন নি। টয়লেটে টাকা গুয়ের গন্ধে বেহুশ হয়ে পরে যান তারপর তার বাবা মা তাকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়েযান।সে এখন সুষ্থ আছে।


তিনি বলেনএটা নিজেকে নিয়ে মজা করার একটা উপায় এবং দ্রুত ভাইরাল হওয়া যায়। আমি কেন এমন করেছিকারণসবাই জানার পর আমাকে নিয়ে আলোচনা করছে  আমার ভিডিও সিন করতেছে। আগামীতেও একইভাবে ভিডিও করব তারপর সবাই আমাকে নিয়ে মজা করবে এবং আমার ভিডিও ভাইরাল হবে।


এদিকে টয়েলেটে বসে থাকতে মিম যাতে বিরক্ত না হনএজন্য সে wifi কানেকশন নিয়েছিলেন।

এতে মিম তার বন্ধু এবং ফ্যান দের সঙ্গে কথা বলতে পারেন। সে ব্যক্তিগত জীবনে টিকটক স্টার অফু ভাইয়ের ফলোয়ার এবং ফ্যান। তার দেখাদেখি এসব করছেন।


দীর্ঘক্ষণ টয়েলেটে বসে থাকা মোটেও সহজ নয় উল্লেখ করে মিম বলেনবসে থাকতে থাকতে আমার পা ব্যথা হয়ে গিয়েছিল।আমি খুবই ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম। তাছাড়া বিশ্রী গুয়ের গন্ধ সাথে ছিল পরে আমি বেহুশ হয়ে যাই। পরে জানা যায় যেই ভিডিও করার জন্য তাকে হাসপাতালে যেতে হল সেই ভিডিও তে লাইক পরেছে  টি মাএ।

Post a Comment

0 Comments