দাউদকান্দির গৌরিপুরে এক মহিলা একসাথে তিন ছেলের জন্ম দিয়েছেন

কি আশ্চয্য এক ঘটনা ঘটলো কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায়। সারাদেশ যখন প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে অস্থির ঠিক তখনই মোসা: রেখা আক্তার (২৫) নামে এক নারী তিন পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এ যেন পৃথিবীতেই স্বর্গের দেখা মা রেখা আক্তারের। খুশিতে আত্মহারা রেখার পরিবার পরিজনসহ স্বজনরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক সাথে তিন পুত্র সন্তান হওয়ার খবরটি ছড়িয়ে পড়ে মুহুর্তে ।


গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর খিদমা ডিজিটাল হসপিটালে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে পৃথিবীর আলোর মুখ দেখেন ফুটফুটে ওই তিন পুত্র সন্তান। সিজার অপারেশনের নেতৃত্ব দেন সার্জন ডা. শারমিন সুলতানা ও অ্যানেসথেসিয়া ডা. নুরুজ্জামান। গৌরীপুর খিদমা হসপিটালের চেয়ারম্যান দেওয়ান মো: সাইফুল ইসলাম স্বপন জানান, চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার আতিশ্বর গ্রামের মো: রিপন মিয়ার স্ত্রী প্রসব ব্যাথা নিয়ে সকালে হসপিটালে ভর্তি হন। অন্য একটি হসপিটালের দেয়া তার রিপোর্টে যমজ বাচ্চার কথা উল্লেখ থাকলেও শুক্রবার সকালে সিজারের মাধ্যমে একে একে তার তিন পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহন করে।

বর্তমানে মা ও তিন পুত্র সন্তান সুস্থ এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পর্যবেক্ষণে রয়েছে। এদিকে নবজাতকদের খালা খুকি আক্তার বলেন, তার বোন রেখা আক্তারের আগে নিপা, আরিফা ও তাবাছুম নামে তিন কন্যা সন্তান রয়েছে। একই সঙ্গে তিন পুত্র সন্তান পেয়ে খুশিতে আত্মহারা রেখার পরিবার পরিজনসহ স্বজনরা। তিনি আরো জানান রেখা আক্তারের স্বামী রিপন মিয়া ঢাকায় কাচাঁমালের ব্যবসা করে কোন রকম সংসার চালাচ্ছেন। এক সাথে নবজাতক তিন সন্তানের খরচ বহন কষ্ট দায়ক। তাই তিনি সমাজের দানবীর ও বিত্তবানদের আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন। এদিকে একই সঙ্গে তিন ফুটফুটে পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহনের খবর শুনার পরই শত শত লোক হাসপাতালে ভিড় জমায় তাদের এক নজর দেখতে।

Post a Comment

0 Comments