মতলবের ভাটি রসুলপুরে লকডাউনে স্কুলের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে পাঠদান করছেন কিছু তরুন


এইচ এম আল আমিন: বিরল ইতিহাস কিনা বলবো না কিন্তু ছোট হলেও এই কার্যক্রম যারা শুরু করেছে তারা আসলেই বীরত্ব পাওয়ার অধিকার আছে।


চাঁদপুরের মতলব উত্তরে তরুণ ছাএ ছাএীদের একটি মহতি উদ্যোগ। চাঁদপুর জেলার মতলব (উওর) উপজেলার ১০ নং ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নের ভাটি রসুল পুর সমাজ কল্যান সংস্থার উদ্যোগে করোনা কালিন মহামারির এই সময়ে সরকারি সকল প্রকার সাস্থবীধি মেনে গ্রামের সকল শিক্ষাএীদের বিনামূল্যে পাঠদান দিয়ে যাছছে একদল তরুণ ছাএ ছাএী।তাদের ভিতর আছেন জোবায়ের, মেসবাহ উদ্দিন সহ আরো অনেকে।

ওরা নিয়মিত ভাবে ৬ষ্ঠ শেনী থেকে দশম শেনী পরযন্ত শিক্ষাএীদের সকল বিষয়ে পাঠদান চালিয়ে যাছছে। করোনা কালিন এই সময়ে দেশের সকল শিক্ষা কাযঐম সরকার অনিদিসট কালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করার ফলে দেশের সকল গ্রামের নেয় আমাদের এই ছোট গ্রামটির সকল শিক্ষাএীদের শিক্ষা কার্যএম একেবাড়েই বন্ধ হয়ে যায়।কারন গামের অধিকাংশ অভিবাবক গরীব যারা গ্রামে থাকেন তাদের পক্ষে সন্তানদের বাড়ীতে রেখে নিজেদের পড়াশোনা সম্ভব নয় যার ফলে গামের ছাত্র ছাত্রীর বড় অংশ শিক্ষা কার্যক্রম থেকে চিরতরে ঝরে যাওয়ার আশংকা দেখা দেয়।এই পরিস্থিতি মোকাবেলার লক্ষ্যে সংস্থার উদ্যোগে কিছু তরুণ উদ্যমি ছাত্র।

 ছাত্রীরা সকল অভিভাবক এবং গ্রামেরর গন্য মান্য ব্যাক্তি দের সাথে পরামর্শ করে তাদের মতামত এবং সাহায্য নিয়ে ঔ গামের অবস্হিত হাজী জালাল উদ্দীন ফকির ভাড়ীর বাংলা ঘড়ে অস্থায়ী ভাবে শিক্ষা কার্যঐম চালিয়ে যাছছে।শিক্ষা কাযঐম চালিয়ে নেয়ার জন্য তাদেরকে সাহায্য করেন উঔ গামের কৃতি সন্তান তরুণ ব্যাবসায়ী ও সমাজ সেবক মোঃ বোরহান উদ্দিন ফকির মোঃ আরিফ হোসেন পরবর্তীতে কোন কিছুর পয়োজন হলে আরো সহযোগিতা করার আশশাস দেন এবং শিক্ষা কার্যঐম চালিয়ে যাওয়ার আহবান করেন।এই উদেগের জন্য গামের সকল অভিভাবক ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ তাদের প্রতি দেয়া ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Post a Comment

2 Comments

  1. বানানে ব্যাপক ভুল

    ReplyDelete
    Replies
    1. Sorry next time dekhe nibo. Reporter kheyal kore ni

      Delete