টানা বৃষ্টিতে চাঁদপুরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি, দুর্ভোগ পোহাচ্ছে চাঁদপুরের শহরবাসী

 শহরের বিষ্ণুদী মাদ্রাসা রোড, নাজিরপাড়া, প্রফেসরপাড়া, মমিনপাড়া, রহমতপুর কলোনি, চাঁদপুর সরকারি কলেজ রোড, মুক্তিযোদ্ধা সড়ক, ট্রাক রোড, পালবাজার, কালীবাড়িসহ শহরের নিচু এলাকা প্রায় হাঁটু পানিতে তলিয়ে গেছে।


বন্যা নয়, টানা বৃষ্টিতে চাঁদপুর শহরের অনেক এলাকা ডুবে গেছে। শনিবার রাতভর বৃষ্টির পর এ অবস্থার সৃষ্টি হয়। এর মধ্যে পদ্মা, মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীতেও জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে স্থায়ী জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে অনেক স্থানে। এতে করে সাময়িক দুর্ভোগের মুখে পড়েন শহরবাসী।


চাঁদপুর আবহাওয়া অফিসের উচ্চ পর্যবেক্ষক শাহ মো. শোয়েব জানান, চাঁদপুরে গত ৪৮ ঘণ্টায় ৮১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে রোববার ভোর ৬টা থেকে সকাল ১০ পর্যন্ত ৫৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

শহরবাসীরা জানান, এসব এলাকার অনেক জায়গায় মসজিদ, বাসাবাড়ি, দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও পানি ঢুকে চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে সবাইকে।

পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন বলেন, ‘আমাদের পর্যাপ্ত ড্রেনেজ আছে। এসব ড্রেন সব সময় সচল রাখা হয়। তবে, কিছু কিছু এলাকায় ড্রেনে ময়লা ও আবর্জনা ফেলে এবং বাড়ি নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে প্রায় অচল করে ফেলে। এ কারণে সাময়িক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। নদনদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে শহরের এসব এলাকার পানি নামতে একটু সময় নিচ্ছে।’

স্থানীয় বাসিন্দা মো. সেলিম জানান, প্রতিবছর বর্ষার সময় তাদের এলাকায় বৃষ্টির পানিতে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। মূলত পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা সঠিকভাবে কাজ না করাতেই এই অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments