কেনো মেসির জার্সি চেয়েও পায়নি ডেভিস

 সেমি-ফাইনালের সে ম্যাচে ৮-২ গোলে হেরে যায় বার্সেলোনা। ম্যাচ শেষে মেসির কাছে গিয়েছিলেন বায়ার্নের তরুণ ডিফেন্ডার আলফান্সো ডেভিস। কিন্তু তার ডাকে সাড়া দেননি মেসি। আগের দিন লিঁওর বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পর এ প্রসঙ্গে ডেভিস বলেন, 'আমি এটা (মেসির জার্সি) চেয়েছিলাম। কিন্তু আমার মনে হয় সে অনেক বেশি দুঃখিত ছিল। পরের বার, হয়তো...'


জাদুকরী ফুটবল শৈলী উপহার দিয়ে কতো ম্যাচই জিতেছেন লিওনেল মেসি। আবার হেরেছেনও অনেক। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষের হারটি হয়তো কখনোই ভুলে যেতে পারবেন না বার্সা অধিনায়ক। কারণ রীতিমতো তাদের উড়িয়ে দিয়েছে বাভারিয়ানরা। আবার সেই ম্যাচে শেষেই প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড় চেয়েছেন তার জার্সি। কিন্তু সে সময় অনেক বেশি দুঃখিত থাকায় জার্সি আর বদল করেননি রেকর্ড ছয় বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা।

কিন্তু তারপরও আলোচনা থেমে নেই। কারণ করোনাভাইরাসের কারণে বদলে যাওয়া নিয়মের কারণেই সাড়া দেননি মেসি, না-কি হারের বেদনা সইতে না পেরে। এ নিয়ে বিস্তর আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

তবে প্রসঙ্গ রয়েছে আরও একটি। বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ফুটবলে বদলে গেছে অনেক নিয়ম। তার মধ্যে একটি হচ্ছে জার্সি বদল না করা। সংক্রামণ আটকাতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে উয়েফা। নতুন নিয়মের ৩১ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, কোনো খেলোয়াড়ের সঙ্গে জার্সি বদল করা যাবে না। যে কারণে মেসির জার্সি বদল না করাকে স্বাভাবিক দেখছেন অনেকেই।

এদিকে, আগের দিন আরবি লাইপজিগের মার্সেল হালস্টেনবার্গের সঙ্গে জার্সি বদল করে নিষেধাজ্ঞার শঙ্কায় আছেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। যদিও এখনও বিষয়টি খোলাসা করে বলেনি উয়েফা।

তবে জার্সি না পেলেও মেসির বিপক্ষে খেলতে পেরে দারুণ আহ্লাদিত ডেভিস। সংবাদ সম্মেলনে নিজের উচ্ছ্বাস গোপন করতে পারেননি, 'সত্যি বলতে কি, (মেসির বিপক্ষে খেলতে পেরে) আমি আমার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি... একটা স্বপ্ন সত্যি হলো।'

Post a Comment

0 Comments