ছয় বিশেষজ্ঞ পেসার নিয়ে ‘মধুর সমস্যায়’ ইংল্যান্ড

১৪ জনের দলে ছয়জন বিশেষজ্ঞ পেসার। সাম্প্রতিক ফর্ম, আর স্কিলের সামর্থ্যে এদের প্রত্যেকেই একাদশে জায়গা দাবি করেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে সেরা একাদশ বাছতে তাই মধুর সমস্যায় পড়তে যাচ্ছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট।



বুধবার থেকে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ড-পাকিস্তান প্রথম টেস্ট। দুই অভিজ্ঞ জেমস অ্যান্ডারসন আর স্টুয়ার্ট ব্রডের যে এখনো অনেক কিছু দেওয়ার বাকি কদিন আগেই বুঝিয়েছেন তা। জোফরা আর্চারের গতি আর স্কিল নিয়ে প্রশ্ন নেই। মার্ক উড নিয়মিতই ৯০ মাইলের বেশি গতিতে বল করেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সীমিত সুযোগ পেয়েও স্যাম কারান আর ক্রিস ওকস জানান দিয়েছেন, সেরা অবস্থায় আছেন তারাও।

এদের মধ্যে অন্তত যেকোনো দুজনকে একাদশের বাইরে রাখতে হবে। পেস বোলিং অলরাউন্ডার বেন স্টোকসও থাকায় তিন বিশেষজ্ঞ পেসারের বেশি একাদশে জায়গা করার অবস্থা নেই।  তবে সাত সপ্তাহের মধ্যে ছয় টেস্টের সূচি থাকায় এতে কিছুটা সুবিধাও আছে থ্রি লায়ন্সদের।

পেসারদের জন্য ঠাসা সূচি খুব একটা আদর্শ না। ইংল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট তাই কোন পেসারকেই ছয়টি টেস্ট খেলানোর পক্ষে না।  করোনাভাইরাসের মধ্যে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে পেসারদের ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে খেলানোর বিকল্প হাতে আছে তাদের।

বাকিদের ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে খেলানো হলেও ব্রড-অ্যান্ডারসনকে বাকি ম্যাচগুলোতে খেলতে দেখার সম্ভাবনা প্রবল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের একাদশ থেকে  বাদ পড়ার ব্রড কতটা ভেঙ্গে পড়েছিলেন, সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন তা। এমনকি হতাশায় খেলা ছেড়ে দেওয়ার কথাও ভেবেছিলেন তিনি।

ফেরার পর দুই টেস্টে ১৬ উইকেট নিয়ে হয়েছেন সিরিজ সেরা। ১১ এর নিচে গড়ে উইকেট নিয়ে দেখিয়েছেন নিজের সামর্থ্য। ইতিহাসের মাত্র সপ্তম বোলার হিসেবে ছুঁয়েছেন ৫০০ উইকেটের মাইলফলক।

৩৪ বছর বয়েসী ব্রড ফুল লেন্থে বল করে বিপদজনক মুভমেন্ট আদায় করে ব্যাটসম্যানদের কাবু করছেন। বয়সকে উপেক্ষা করে আছেন সম্ভাব্য সেরা ছন্দে।

তার থেকে চার বছরের বড় অ্যান্ডারসন গত সিরিজে বড় সাফল্য না পেলেও স্যুইং মুন্সিয়ানায় গুরুত্বপূর্ণ সময়ে অবদান রেখে বুঝিয়েছেন তার দেওয়ার আছে অনেক কিছু।

Post a Comment

0 Comments