লাউয়াছড়ায় অবমুক্ত করা হলো শ্রীমঙ্গল থেকে উদ্ধারকৃত কোবরা সাপটি

 পূর্ব ভাগলপুর গ্রামের বাসিন্দা ওই যুবক বলেন, ‘সাপটি আমাদের গ্রামের রাস্তায় চলে এসেছিল। তখন গ্রামবাসীরা সেটিকে মারতে উদ্যত হয়। তখন আমি তাদের বাধা দিয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সাপটিকে উদ্ধারের অনুরোধ করি।’


মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভাগলপুরে উদ্ধারকৃত একটি কোবরা (কালো খরিস) সাপকে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়েছে।


বাংলাদেশ বন্য প্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব বলেন, ‘শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে ৯৯৯ নম্বর থেকে আমাদের মোবাইলে কল করে সাপটিকে উদ্ধারের জন্য বলা হয়। এটি ভয়ানক কোবরা (স্থানীয় কালো খরিস) সাপ। সাপটি দুর্বল হয়ে গিয়েছিল। সুস্থতার জন্য সেটিকে বাংলাদেশ বন্য প্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনে রাখা হয়েছিল। গতকাল লাউয়াছড়ায় অবমুক্ত করা হয়। অবমুক্ত করেন রেঞ্জ কর্মকর্তা মোনায়েম হোসেন ও ফরেস্ট গার্ড মোহাম্মদ ইব্রাহিমসহ কয়েকজন।’

দুই দিন ধরে শুশ্রূষার পর গতকাল বিকাল ৪টায় সাপটিকে লাউয়াছড়ায় অবমুক্ত করা হয়। স্থানীয় যুবক মো. সাজ্জাদুর হোসেন ৯৯৯ নম্বরে কল করার কারণে সাপটি মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যায়।

Post a Comment

0 Comments