১ সেপ্টেম্বরেই খুলছে নয়নাভিরাম ‘সাজেক ভ্যালি’

 বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আহসান হাবিব জিতু জানান, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাজেক ভ্যালি পর্যটন কেন্দ্রটি খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক রিসোর্ট মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে ১ সেপ্টেম্বর থেকে সাজেক পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।’


আগত পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের অনুরোধ করেন তিনি।

করোনার কারণে দীর্ঘ পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর খাগড়াছড়ি-রাঙ্গামাটির সীমান্তবর্তী বাঘাইছড়ি উপজেলার বাংলার দার্জিলিং খ্যাত নয়নাভিরাম ‘সাজেক ভ্যালি’ ১ সেপ্টেম্বর থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে।

সাজেক কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি সুপর্ণ দেব বর্মণ বলেন, ‘প্রশাসনের সঙ্গে আমাদের সাজেকে পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিষয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাজেক ভ্রমণ করতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘মাস্ক পরিধান ছাড়া কোনো পর্যটককে আমরা কটেজে রুম ভাড়া দেব না।’

অবকাশ রিসোর্টের মালিক লালমিং ময়া জানান, দেশের সব পর্যটন কেন্দ্র খুলে দিলেও সাজেক পর্যটন কেন্দ্র এতদিন বন্ধ ছিল। খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাই। মহামারির কারণে পর্যটন কেন্দ্রগুলো দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে রিসোর্ট মালিকরা। খুলে দেওয়ার ফলে ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করেন এই ব্যবসায়ী।

Post a Comment

0 Comments