আজ নিজ নিজ দলকে বাঁচাতে মাঠে মেসি ও লেভানডভস্কি

 নতুন আদলের ইউরোপের সেরা ক্লাব আসরের এক লেগের কোয়ার্টার ফাইনালে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত একটায় মাঠে নামছে বার্সা ও বায়ার্ন। ম্যাচের ভেন্যু পর্তুগালের লিসবনের স্তাদিও দা লুজ।


চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ২০১৪-১৫ মৌসুমের সেমিফাইনালে যখন শেষবার দল দুটি মুখোমুখি হয়েছিল, তখন বার্সেলোনা হারিয়েছিল বায়ার্ন মিউনিখকে। তবে ওই ফলের পুনরাবৃত্তি হওয়ার সম্ভাবনা এবার কম।

বরং ২০১২-১৩ মৌসুমের সেমিফাইনালে দুদলের মধ্যে যে লড়াইয়ে বায়ার্ন দুই লেগ মিলিয়ে বড় ব্যবধানে জিতেছিল বার্সার বিপক্ষে, সেরকম কিছু ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। মূলত চলতি মৌসুমে দল দুটির পারফরম্যান্স বিবেচনা করে এই ধারণা পাওয়া যায়।

জার্মান ক্লাব বায়ার্ন ঘরোয়া ডাবল (লিগ ও কাপ) উঁচিয়ে ধরার পাশাপাশি সবশেষ ১৮ ম্যাচে টানা জিতেছে। অন্যদিকে, বার্সেলোনা এখন পর্যন্ত কোনো শিরোপার নাগাল পায়নি। স্প্যানিশ লা লিগার রাজত্ব তারা খুইয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে।

দলগত খেলা হলেও সেমিফাইনালে জায়গা করে নেওয়ার ম্যাচটাকে বার্সেলোনার লিওনেল মেসি ও বায়ার্নের রবার্ট লেভানডভস্কির মধ্যকার লড়াই হিসেবেও অভিহিত করা হচ্ছে। ব্যবধান গড়ে দিতে তাদের জুড়ি নেই।

পোল্যান্ডের তারকা লেভানডভস্কিকে বর্তমানে ইউরোপের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর স্ট্রাইকার হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। তিনি এই মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৫৩ গোল করেছেন। অন্যদিকে, রেকর্ড ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী আর্জেন্টিনার অধিনায়ক মেসির নামের পাশে রয়েছে ৩১টি গোল।

Post a Comment

0 Comments