JSC পরীক্ষা বাতিল হল সেই খুশিতে জুম্মার নামাজের পরে মসজিদে মিলাদ দেবে মতলবের এক JSC শিক্ষার্থী

 JSC পরীক্ষা হবে না শোনে আনন্দে লাফ দিয়ে খাট ভেঙে ফেলেছেন মতলবের এক jsc শিক্ষার্থী। সে আরো জানিয়েছে এইখুশীতে আজ শুক্রবার জুম্মার নামাজের পরে মসজিদে মিলাদ দেবেন।


চলতি বছরের অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসিপরীক্ষা বাতিল করাহয়েছে। এর আগে প্রাথমিক  ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করা হয়।



 করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলেউচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসিপরীক্ষাও বাতিল হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।


এছাড়াও গত মঙ্গলবার  প্রাথমিক  গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে এর আগে  বছরকেন্দ্রীয়ভাবে প্রাথমিক  ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী (পিইসিপরীক্ষা হবে না। সমাপনীর বদলে স্কুলে স্কুলে বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়াহবে।


বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার সংক্রমণের কারণে গত ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।ইতোমধ্যে এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।  পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল গত এপ্রিলের শুরুতে। এইচএসসি পরীক্ষারসিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী  অভিভাবকদের জানার আগ্রহ থাকলেও সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানায়নি মন্ত্রণালয়।তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন করে আরও একমাসের বেশি ছুটি বৃদ্ধি করায় কমপক্ষে দেড় মাসের মধ্যে আর এইচএসসি পরীক্ষাহওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।



প্রধানমন্ত্রী বলেনএতদিন পর্যন্ত স্কুল নাইক্লাস নাই। পড়াশোনার ক্ষতি হচ্ছে। আসলে এতে ক্ষতি হলেও তো কিছু করার নাই।কারণ করোনায় সারা দেশ ভুগছে।


বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্টসকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথোপকথনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনা ক্লাস শুরু নিয়ে অনিশ্চয়তায় বাড়িতে বসেই পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার তাগিদ দেন। এসময় পরিবর্তিত পরিস্থিতিতেপ্রয়োজনে পরের শ্রেণিতে অটো প্রমোশনের ইঙ্গিতও দেন সরকার প্রধান।


করোনার পরিস্থিতির কারণে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী  অক্টোবর পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে সরকার। এতে স্কুলকলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিরাজ করছে আনন্দ। কেউ কেউ বলে যাক অনেক দিন ধরেই বন্ধ আছে স্কুল পরাশোনা করিনিকিছু পরীক্ষা না হলেই ভালো।


আর এদিকেজে এস সি পরীক্ষা হবে না শুনে মতলব উত্তরে এনায়েত নগরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী বলেনভাবাগো বেঁচে গেলাম পরীক্ষার প্রস্তুতি তেমন ভালো ছিলো না। স্কুলে যেতে পারিনি ঠিক মত মাথার ব্রেন যেন বোতা হয়ে গেসে।ভালোই হলো সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।ধন্যবাদ হাসিনা দাদু। আজকে আমি জুম্মার নামাজের পরে মসজিদে মুসল্লিদের মিষ্টি দিব।

Post a Comment

0 Comments