করোনাকেও হারালেন মেসি

 মেসি মঙ্গলবার বার্সেলোনা ছাড়ার সিদ্ধান্তের (২৫ আগস্ট) রাতে বুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে ক্লাবকে জানান। মেসির এমন সিদ্ধান্ত শোনার পরই ফুটবলপ্রেমীরা হামাগুড়ি দিয়ে পড়েন গুগলে। ‘মেসি নিউজ’, ‘মেসি বার্সা’, ‘মেসি ইজ লিভিং’, ‘হোয়াট হ্যাপেনড টু মেসি’, ‘সোপ অপেরা মেসি’,- এসব লিখে সার্চ দেয়া শুরু করেন ফুটবলপ্রেমীরা। মেসি এবং বার্সেলোনা বিচ্ছেদের নতুন আপডেট জানতেই এভাবে গুগলে হামলিয়ে পড়েন ফুটবল ভক্তরা।



করোনাভাইরাসের মহামারির শুরুর প্রথম থেকেই প্রতিদিন মানুষ এই ভাইরাস নিয়ে খুঁটিনাটি বিষয় জানার প্রবণতাই অনেক বেশি দেখা গেছে। ভাইরাসের আধিপত্য চলছে গুগল সার্চ ইঞ্জিনেও। শুধু মেসিই পেরেছেন এই গুগল সার্চ ট্রেন্ডে করোনাকে হার মানাতে।

গুগলে মেসিকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ সার্চ দেওয়া হয়েছে স্পেনে। স্পেনে বুধবার (২৬ আগস্ট) বিকেল (স্থানীয় সময়) পর্যন্ত মেসিকে নিয়ে সার্চের হার করোনাভাইরাস নিয়ে সার্চের হারের পরিমাণকেও ছাপিয়ে গেছে বলেন জানায় স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম "এএস'। অর্থাৎ মেসিকে নিয়ে মানুষের আগ্রহ গুগলে করোনা করোনাভাইরাসকেও হারিয়ে দিল। 'এএস' সংবাদমাধ্যমটি গুগল ট্রেন্ডস টুল থেকে খবরটি জানিয়েছে।  

বিশ্বব্যাপী সার্চের হিসেবেও কয়েক ঘণ্টার জন্য করোনাকে টেক্কা দিয়েছিলেন মেসি। আর্জেন্টাইন তারকার বার্সা ছাড়ার সিদ্ধান্ত প্রকাশ হওয়ার পর এ নজির বেশি দেখা গেছে। 

বার্সা যেহেতু কাতালান ক্লাব তাই কাতালুনিয়া অঞ্চলে মেসিকে নিয়ে গুগলে সার্চের হার সবচেয়ে বেশি—যা করোনা নিয়ে সার্চ দেওয়ার দ্বিগুণ (৭০%-৩০%)। ভ্যালেন্সিয়া ও গ্যালিসিয়া অঞ্চলে এই হার তুলনামূলক কম। ৫০-৫০ এবং ৪৯-৫১ শতাংশ প্রায়। মাদ্রিদে এই হার বেশি হওয়ার কথা ছিল, যেহেতু বার্সেলোনা রিয়াল মাদ্রিদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব। আর তাই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের সেরা খেলোয়াড় ক্লাব ছাড়তে চান, এ খবর প্রকাশ হওয়ার পর মাদ্রিদে আগ্রহটা তুঙ্গে থাকার প্রত্যাশাই স্বাভাবিক। ভুল। মেসির তুলনায় করোনা নিয়ে বেশি সার্চ (৫৩%) দিয়েছেন মাদ্রিদের নাগরিকেরা।

আফ্রিকান দেশগুলোর মধ্যে নাইজেরিয়া সবচেয়ে এগিয়ে। সেখানে করোনা ও মেসিকে নিয়ে তুলনামূলক সার্চের হারে আর্জেন্টাইন তারকা প্রমাণ ব্যবধানে এগিয়ে। উত্তর আমেরিকায় এই হার মোটেই কম না। 

এএস জানাচ্ছে, বিশ্বে কিছু দেশের মানুষ গুগলে করোনার চেয়ে বেশি সার্চ করেছে মেসিকে নিয়ে। এশিয়ায় চাইনিজ ভাইরাসের চেয়ে মেসিকে নিয়ে সার্চের হার বেশি। ইউরোপের কিছু দেশ পর্তুগাল, তুরস্ক, নেদারল্যান্ডস, পোল্যান্ডের চিত্রটা স্পেনের মতোই। এসব দেশে মেসিকে নিয়ে সার্চ দেওয়ার হার ছাপিয়ে গেছে করোনাকে।

তবে দক্ষিণ আমেরিকার পরিসংখ্যান অবাক করবে। করোনার তুলনায় মেসিকে নিয়ে এ মহাদেশে গুগলে সার্চ দেওয়ার হার ৬১ শতাংশ। কিন্তু মেসির দেশ আর্জেন্টিনায় তাঁর বার্সা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে মানুষের তেমন আগ্রহ নেই। করোনার তুলনায় সেখানে মেসিকে নিয়ে সার্চ দেওয়ার হার মাত্র ৩৯ শতাংশ। আর মেসির রাজ্য সান্তা ফে-তে ৫৭ শতাংশ সার্চ তাঁকে নিয়ে, ৪৩ শতাংশ করোনা নিয়ে।

Post a Comment

0 Comments