পিএসসির চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পেতে পারেন যারা

 


জানা গেছে, আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর ড. মোহাম্মদ সাদিক অবসরে যাচ্ছেন। তবে তার অবসরে যাওয়ার পর কে বসছেন সাংবিধানিক এ পদটিতে। এটি নিয়ে বেশ জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে।

চলতি মাসেই অবসরে যাচ্ছেন সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক। পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে কে আসছেন? বর্তমানে সেই গুঞ্জনই চলছে পিএসসিসহ বিভিন্ন মহলে। তবে এ তালিকা পাঁচজনের নাম শোনা যাচ্ছে।

পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগের জন্য ইতোমধ্যে কয়েকজনের নাম উচ্চপর্যায়ে আলোচনা চলছে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আছেন সরকারি কর্মকমিশনের সদস্য এস এম গোলাম ফারুক। গত বছরের সেপ্টেম্বরে তিনি পিএসসির সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হন।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান, পিএসসির আরেক সদস্য ফয়েজ আহম্মদ, ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বাসসের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক-এর নামও রয়েছে এই তালিকায়।

তথ্যমতে, ২০০৪ সালে সংবিধানের চতুর্দশ সংশোধনীর মাধ্যমে পিএসসির চেয়ারম্যানের অবসরের বয়স ৬২ বছর থেকে ৬৫ বছর করা হয়। বাংলাদেশের সংবিধানের ১৩৮(১) অনুচ্ছেদের ক্ষমতাবলে রাষ্ট্রপতি এ পদে নিয়োগ দিয়ে থাকেন।

এছাড়া চেয়ারম্যান হওয়ার দৌড়ে আরও বেশ কয়েকজন প্রাক্তন আমলার নাম শোনা যাচ্ছে। সংবিধানের ১৩৯ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘পিএসসির চেয়ারম্যান বা কোনো সদস্যের দায়িত্ব গ্রহণের তারিখ থেকে পাঁচ বছর বা ৬৫ বছর পূর্ণ হওয়া—এর মধ্যে যেটি আগে ঘটবে সে পর্যন্ত কমিশনের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।’ ফলে ৬৫ বছর পূর্ণ হওয়ায় ড. মোহাম্মদ সাদিক বিদায় নিচ্ছেন।

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত সাংবিধানিক এই প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হিসেবে এ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেছেন মোট ১৩ জন ব্যক্তি। পিএসসির প্রথম চেয়ারম্যান ছিলেন ড. এ কিউ এম বজলুর করিম। ১৩তম ব্যক্তি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক। ২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে ড. মোহাম্মদ সাদিককে পিএসসির চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার।

Post a Comment

0 Comments