আত্মহত্যার পরিমাণ বেড়েই চলছে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে

 ভারতীয় কেন্দ্রীয় সশস্ত্র বাহিনীতে আত্মহত্যার পরিমাণ বেড়েছে। দেশটির ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো (এনসিআরবি) তথ্য বলছে, ২০১৯ সালে কেন্দ্রীয় বাহিনীতে মোট ৩৬টি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। ২০১৮ সালে এই সংখ্যাটি ছিল ২৮। যদিও ২০১৪ সালে এই সংখ্যাটি ছিল ১৭৫ এবং ২০১৫ সালে ছিল ৬০। তার পরে ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে কমবেশি সংখ্যাটি একই জায়গায় থাকলেও ২০১৮ সালে তা এক লাফে ২৮-এ নেমেছিল। 



ভারতের একটি কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক পদস্থ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘ইদানিং ছুটি বা পোস্টিংয়ের ক্ষেত্রে কিছু পদ্ধতিগত বদল এনেছি। সিআইএসএফ-সহ কেন্দ্রীয় বাহিনীগুলিতে অনলাইনে ছুটির আবেদন করা যাচ্ছে। যুক্তিগ্রাহ্য কারণ ছাড়া ছুটি বাতিল করা হচ্ছে না।’’

এনসিআরবির বরাত দিয়ে আনন্দবাজার জানায়, আত্মহত্যার পিছনে সব থেকে বেশি কারণ পারিবারিক অশান্তি। ৩৬টি ঘটনার মধ্যে ১৪টি ঘটনায় পারিবারিক অশান্তি দায়ী। তবে ১৭টি ঘটনা এমন রয়েছে সে ক্ষেত্রে আত্মহত্যার কারণ হয় জানা যায়নি অথবা সেগুলিকে ‘অন্যান্য কারণ’-এর গোত্রে ফেলা হয়েছে। ২০১৮ সালে এমন দু’টি গোত্রে ৫টি ঘটনা ঘটেছিল। 

ভারতের কেন্দ্রীয় বাহিনী জানাচ্ছে, জওয়ানদের মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখতে প্রতি মাসে সৈনিক সম্মেলন হচ্ছে। সেখানে শীর্ষ কর্তারা অভাব-অভিযোগও শুনছেন।

বিএসএফ এবং সিআরপিএফের মতো বাহিনী সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে বাড়ি থেকে ৫০০ কিমির মধ্যে পোস্টিং চালু করার চেষ্টা চলছে। তবে এক বছর বা তার পরে সেখান থেকে বদলি করা হচ্ছে। 


Post a Comment

0 Comments