ফেসবুকে আট মাস ধরে প্রেম অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর, দেখা করতে যেয়ে মিলল প্রেমিক অটোরিকশা চালক

ফেসবুকে প্রেম অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর। দেখা করতে গিয়ে দেখে প্রেমিক অটোচালক,জোর করে বিয়ে দিতে চায় পরিবার।





ফেসবুকে আট মাস ধরে প্রেম’ প্রেমের টানে প্রেমিকের বাড়ি ছুটে গিয়ে অনার্স পড়ুয়া প্রেমিকা দেখতে পান প্রেমিক ইজি বাইকচালক  শারীরিক প্রতিবন্ধী।


ঘটনা সূত্রে জানাগেছে’ বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার ২নং’ খোন্তাকাটা ইউনিয়নের মধ্য খোন্তাকাটা গ্রামের জনৈক ব্যাক্তিরঅনার্স পড়ুয়া মেয়ে সুমি (২০) (ছদ্ম নামএর সাথে পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার আমতলা গ্রামের সেলিম মীরেরছেলে ইজিবাইক চালক রিয়াজ (২৬এর সাথে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে ম্যাসেজ আদান প্রদানের মাধ্যমে প্রেমের সূচনা হয়। এরপরধীরে ধীরে তাদের প্রেম গভীর হতে থাকে।


প্রেমিক রিয়াজ প্রথমেই তার শারীরিক মস্যা  ইজি বাইক চালানোর কথা লুকিয়ে ছিলো প্রেমিকা সুমির কাছে। সুমি এসবকিছু না জেনেই সরল বিশ্বাসে ভালবেসে গেছে রিয়াজকে। এভাবেই / মাস ধরে ফোনের মাধ্যমে চলতে থাকে তাদের প্রেম।গত(১৭ জুন ২০২০তারা সিদ্ধান্ত নেয় দুজনে


এদিকে সুমির পরিবার হন্নে হয়ে খুঁজে বেড়ায় মেয়েকে। কিন্তু কোথাও কোনো খোঁ পায়না তারা। এরই মধ্যে (২৫ জুনবৃহস্পতিবার মঠবাড়িয়া থেকে প্রেমিক রিয়াজে চাচা ইউপি সদস্য খলিল মীরের ফোন আসে তরুণীর বাড়িতে। খবরে পেয়েশরণখোলা উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খাঁন মহিউদ্দিন বিষয়টা নিয়ে কথা বলেনখোন্তাকাটা পরিবার রিয়াজ  সুমির বিবাহর প্রস্তাব দেয়। প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে .লীগ নেতা তাইজুল নিজ ভূমিকায় সেখানথেকে সুমিকে দ্ধার করে।

Post a Comment

0 Comments